কলকাতার পুজোয়ে এবার পৃথিবীর প্রথম ব্লকচেইন নির্ভর ই-ভোটিং

ভোট ব্যবস্থা ঘিরে বার বারই অস্বচ্ছতার অভিযোগ উঠেছে বিশ্বজুড়ে। রিগিং, ভোটবাক্সে কারচুপি, জাল ভোট ইত্যাদি নানাবিধ দুর্নীতি এড়িয়ে স্বচ্ছ ও নিরপেক্ষ ভোট ব্যবস্থা তৈরি, বর্তমান প্রযুক্তিবিদদের কাছে তাই আজ একটা বড় চ্যালেঞ্জ। এই সমস্যা সমাধানে সাম্প্রতিক অতীতে বার বারই উঠে এসেছে ব্লকচেইন প্রযুক্তি ব্যবহারের কথা। আর পৃথিবীর সর্বপ্রথম সম্পূর্ণ ব্লকচেইন প্রযুক্তি নির্ভর অনলাইন পাবলিক পোলটি হতে চলেছে কলকাতায়।

নিউটাউন কলকাতা ডেভেলপমেন্ট অথরিটি, পশ্চিমবঙ্গ ও লিটমাসের যৌথ উদ্যোগে নিউটাউন এলাকার শ্রেষ্ঠ পুজোটিকে বেছে নেওয়া হবে এই অনলাইন ভোটের মাধ্যমে। অনলাইন ভোটদানের এই প্ল্যাটফর্মটি তৈরি করেছে কলকাতা ভিত্তিক স্টার্টআপ ইনফিমঙ্ক কনসালটেন্সি প্রাইভেট লিমিটেড।

litmus

ইমেজ ক্রেডিট: লিটমাস ভোট 

নিবার্চন ব্যবস্থায়  ব্লকচেইনের ব্যবহার

প্রযুক্তি বিশ্বে ব্লকচেইন একটি বহুলচর্চিত বিষয়, গত প্রায় একদশক ধরে ক্রিপ্টোকারেন্সি বা সাংকেতিক মুদ্রা ব্যবস্থায় সাফল্যের সঙ্গে ব্যবহারের পর এই প্রযুক্তিকে কীভাবে নির্বাচন ব্যবস্থায় ব্যবহার করা যায় তা নিয়ে পরীক্ষা নিরীক্ষা চলছে গোটা পৃথিবীতে। আগামী দিনে রাজনৈতিক নির্বাচনের ক্ষেত্রে ব্লকচেইন প্রযুক্তির ব্যবহার এক বৈপ্লবিক পরিবর্তন আনতে পারে বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞদের একাংশ।  

এবছরের মে মাসে, আমেরিকার পশ্চিম ভার্জিনিয়ার দুটি কাউন্টিতে প্রবাসে বসবাসকারী ভোটার ও অন্যদেশে থাকা সেনাকর্মী ও তাঁদের পরিবারের সদস্যদের ভোটগ্রহণ করা হয় ব্লকচেইন ভিত্তিক অ্যাপের মাধ্যমে। প্রাথমিক এই পরীক্ষায় সাফল্যের পর আগামী নভেম্বরের নিবার্চনে গোটা পশ্চিম ভার্জিনিয়াতেই এই পদ্ধতি লাগু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সে দেশের প্রশাসন

নির্বাচন সুরক্ষা বিশেষজ্ঞদের অনেকে এই ব্যবস্থার নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন তুললেও প্রযুক্তিবিদদের একটা বড় অংশই মনে করছেন এটাই আগামী পৃথিবীতে নির্বাচন ব্যবস্থার ভবিষ্যত।

ব্লকচেইন প্রযুক্তির নিরাপত্তা ও স্বচ্ছতা

প্রযুক্তির ভাষায় ব্লকচেইন একটি বন্টনযোগ্য ডেটাবেস বা ডিস্ট্রিবিউটেড লেজার যা অংশগ্রহণকারী সকলের জন্য উন্মুক্ত এবং এতে একবার কোনও তথ্য বা ডেটা দিলে তা মুছে ফেলা বা পরিবর্তন করা অসম্ভব। এই ডেটাবেস যেহেতু বন্টিত, কোনও একটি জায়গায় সংরক্ষিত নয় এবং কেন্দ্রীভূত না তাই হ্যাকিংয়ের কোনও ঝুঁকি থাকে না। এবং এতে সংরক্ষিত ডেটা সকলের জন্য উন্মুক্ত হওয়াতে সহজেই যাচাইযোগ্য।

পৃথিবীর সর্বপ্রথম সম্পূর্ণ ব্লকচেইন ভিত্তিক গণভোট

ইনফিমঙ্কের এই পোলিং প্ল্যাটফর্মটির মাধ্যমে ভোট দিয়ে নিউটাউন কলকাতা ডেভেলপমেন্ট অথরিটির (এনকেডিএ) আওতাভুক্ত ১০০ টি সার্বজনীন দুর্গাপুজোর মধ্যে শ্রেষ্ঠ পুজোটি বেছে নেবেন দর্শকরা। এনকেডিএ-এর চেয়ারম্যান শ্রী দেবাশিস সেনের বিশেষ সহযোগিতা ও উত্সাহেই এই কাজটি সম্ভব হয়েছে বলে জানিয়েছেন ইনফিমঙ্কের স্ট্র্যাটেজিক অ্যাডভাইসর ইয়ামিকা মেহরা।

ইয়ামিকার মতে বিশ্বের ব্লকচেইন মানচিত্রে পশ্চিমবঙ্গকে জায়গা করে দেবে এই উদ্যোগ। আগামীদিনে এ রাজ্যে আর কোন কোন ক্ষেত্রে ব্লকচেইন প্রযুক্তির ব্যবহার করা যেতে পারে তার অনেকটাই এই উদ্যোগের সাফল্যের ওপর নির্ভর করছে বলে মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

এই নিবন্ধটি লিখেছেন  সানন্দা দাশগুপ্ত . একসময়ে একাধিক সংবাদমাধ্যমের নিউজ ডেস্ক সামলানোর পর, বর্তমানে সানন্দা ফ্রিল্যান্স লেখক, সম্পাদক এবং একাধিক অনুবাদ প্রকল্পের সাথে যুক্ত। পাশাপাশি, সানন্দা অধিকার আন্দোলনের এক অভিজ্ঞ কর্মী।   

 



                                                                
                                                                    
                                    

About The Author

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *